বা়ংলার প্রথম পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল সাহিত্য পত্রিকা

জুয়েল মাজহারের দুটি কবিতা

মায়াকাজলের সরোবর

কুজ্ঝটিকা পার হয়ে বিকলাঙ্গ, অন্ধ এক মাছ
স্রোতস্বিনীর দিকে ব্যস্ত রাখে নিজের কম্পাস;

অন্ধ কোটরে তার প্ররোচনা
ভ্রমণের, অপরাজয়ের

নজরে এসেছে তার মায়াকাজলের সরোবর

তারপর কানকো ফুলিয়ে সেই মাছ
বরফ, ঘুমের কুচি একা ঝেড়ে, একা গেল চলে

অযৌন প্রহারে তার সারা গায়ে কাঁটা
তাকালে শীতের ঝাপ্টা লাগে

প্রতিসাম্যে জ্বলমান সরোবরে সেই মাছ এখন আসে না
রুপোলি উৎসব তবু স্বপ্নে তার অবিকল আছে

মনচোর

দিনরাত খোলা দরজায়
যে ঢোকে, সে খুলে দ্যাখে মনোরম গ্রন্থবিতান

সুরে লেখা ভাষালিপি
গিমিকজাগানো এই মনের বিন্যাস

অহো, ম্যাটারফোবিয়া, অহো
ঘুঘুপাখি দেখতে দেখতে
দুপুর ঝুলতে থাকে ডালে

গল্প লেখার দিন
পরিটির আব্দারে কিনে আনি নীল অপন্যাস

মাঝরাতে পরিটি ঘুমের দেশে উড়ে চলে গেলে
চুপে একা সিঁড়ি বেয়ে ছাদে উঠে শুনি

মেদুর অম্বর ঘিরে গাইছেন তথাগত
মনচোর শচীন বর্মণ!

অঙ্কন : সৌজন্য চক্রবর্তী

Comments are closed.